আল্লামা মামুনুল হকের গ্রে’ফতারের দাবিতে ৭২ ঘন্টার আলটি’মেটাম

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মামুনুল হকের গ্রেফ’তারের দাবিতে ৭২ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ বন্ধ করে দেয়ার হু’মকির মাধ্যমে জাতির পিতাকে অব’মাননা করা হয়েছে- এমন অভি’যোগ করে তাকে গ্রে’ফতারের দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণ বন্ধের হু’মকির প্রতি’বাদে আজ সোমবার বিকাল সাড়ে তিনটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আয়োজিত সমাবেশ থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুনের সঞ্চালনায় সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইবুনালের সাবেক প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ, ভাস্কর শিল্পী রাশা, গৌরব৭১-এর সাধারণ সম্পাদক এফএম শাহীন, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, জাতির পিতার ভাস্কর্য স্থাপনে বাঁধা প্রদান এবং স্থাপিত ভাস্কর্য ভেঙে ফেলার ভয়’ঙ্কর হু’মকি দিয়েছে চিহ্নিত স্বাধীনতাবি’রোধী, মৌ’লবা’দী ও সাম্প্রদায়িক অ’পশ’ক্তি। এমন হু’মকি রাষ্ট্রদ্রো’হীতার শামিল। আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মামুনুল হককে গ্রেফ”তার করতে হবে, প্রতিটি উপজেলায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করতে হবে, ধর্মভিত্তিক রা’জনী’তি নি’ষিদ্ধ করার পাশাপাশি উস’কানিদাতাদের আই’নের আওতায় আনতে হবে।

সমাবেশে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুন বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে অব’মাননা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যে ধর্ম ব্যবসায়ী মামুনুল হককে গ্রে’ফতার না করলে সমগ্র দেশে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ আরোও ক’ঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করবে। একাত্তরের পরাজিত অপশক্তির দোসররাই তৌহিদী জনতার ব্যানারে প্রতিনিয়ত রাষ্ট্রবি’রোধী ষ’ড়য’ন্ত্র চলমান রেখেছে।

ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের বিরো’ধিতাকারীরা কখনোই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে না। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরো’ধী এহেন বক্তব্যের বিরুদ্ধে তী’ব্র নি’ন্দা ও প্র’তিবা’দ জানাচ্ছি। সংবিধান ল’ঙ্ঘন করে জাতির পিতাকে অবমা’ননা করা হয়েছে। এদেরকে অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টা’ন্তমূলক শা’স্তি দিতে হবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*