করোনা কম হওয়ায় মানুষ পরীক্ষা করতে চাইছে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিশ্বের হাতে গোনা কয়েকটি দেশের মতো বাংলাদেশ কোভিড-১৯ মহামারি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পেরেছে বলে দাবি করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, বর্তমানে দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার কম হওয়ায় মানুষ বেশি কোভিড-১৯ পরীক্ষা করতে চাইছে না। এ কারণে দেশে সর্বোচ্চ সক্ষমতার চেয়েও কমসংখ্যক নমুনা সংগৃহীত হচ্ছে।

সোমবার জাতীয় সংসদে বিএনপির সাংসদ জি এম সিরাজের এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকের শুরুতে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উপস্থাপন করা হয়।

জি এম সিরাজের প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ও যুগোপযোগী নেতৃত্বে বিশ্বের হাতে গোনা কয়েকটি দেশের মতো বাংলাদেশ কোভিড-১৯ মহামারিকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশে সংক্রমণ শুরুর কয়েক মাসের মধ্যে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ১১৫টি পিসিআর ল্যাব প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছে। এসব ল্যাবে দৈনিক ২০ থেকে ২৫ হাজার পিসিআর পরীক্ষা করা সম্ভব।

প্রয়োজনীয়তা সাপেক্ষে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা আরও বাড়ানো যেতে পারে। বর্তমানে প্রতিদিন ১৩ থেকে ১৫ হাজার পরীক্ষা সম্পন্ন হচ্ছে।
মন্ত্রী জানান, কোভিড-১৯ পরীক্ষার হার দৈনিক চাহিদার ওপর নির্ভরশীল। বর্তমানে দেশের উপসর্গ ও উপসর্গহীন যেকোনো নাগরিক ও দেশে অবস্থানকারী বিদেশি নাগরিকদের চাহিবামাত্র কোভিড-১৯ পরীক্ষা করতে পারেন। পরীক্ষার হার বাড়ানোর লক্ষ্যে সরকার সব রকমের জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। পিসিআর পদ্ধতির পাশাপাশি দ্রুততম সময়ে পরীক্ষার পদ্ধতি দেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*